প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পাঠ্যপুস্তক বিতরণের নির্দেশিকা

image_pdfimage_print

২০১৯ শিক্ষাবর্ষে প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক স্তর, মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠির বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণের নির্দেশিকা প্রদান করা হয়েছে। আজ ২০ ডিসেম্বর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এবিষয়ে এক পরিপত্র জারি করা হয়।

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, ৩১ জানুয়ারীর মধ্যে সকল পাঠ্যপুস্তক সকল শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১০০% বিতরণ সম্পন্ন করতে হবে। এবং ২৮ ফ্রেবরুয়ারীর মধ্যে ভর্তিকৃত সকল ছাত্র-ছাত্রীদের সংখ্যা বা নাম লিপিবদ্ধ করতে হবে।

২০১৯ শিক্ষাবর্ষে মুদ্রিত প্রাক প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের জন্য একটি (০১) আমার বই এবং একটি করে অনুশীলন খাতা সরবরাহ করা হবে।

 

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ছাড়া কারো নিকট পাঠ্যপুস্তক প্রদান করা যাবে না। আর বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে নির্বাহী প্রধানের নিকট বই হস্তান্তর করতে হবে।

বোদ্ধ ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এবং খ্রিস্টান ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা নামীয় পাঠ্যপুস্তক জেলা পর্যায়ে সরবরাহ করা হবে। উপজেলাগুলো প্রয়োজন অনুযায়ী সেখান থেকে সরবরাহ করবে।

২০১৯ সালে নতুন পাঠ্যপুস্তক সরবরাহ করা হবে। বিগত বছরের কোন বই বিদ্যালয়ে পর্যায়ে সরবরাহ করা যাবেনা।

বিনামূল্যের প্রাথমিক স্তরের পাঠ্যপুস্তক বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার বিরোদ্ধে শৃংখলা ও আপিল বিধিমালা ১৯৮৫ অনুযায়ী তার বিরোদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

২০১৯ সালে পাচঁটি(০৫) ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠির ভাষায় প্রাক- প্রাথমিক টিচিং প্যাকেজ ১ম ও ২য় শ্রেণির পাঠ্যপুস্তক সরবরাহ করা হবে।

পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাথে সংযুক্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়, সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ইত্যাদি আরো অনেক প্রতিষ্ঠানে বিতরণ করা হবে।

বিস্তারিত:

http://www.educationbangla.com/media/PhotoGallery/2017June/206-120181220125636.jpg

 http://www.educationbangla.com/media/PhotoGallery/2017June/206-220181220125643.jpg

8 thoughts on “প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পাঠ্যপুস্তক বিতরণের নির্দেশিকা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *