এইচএসসি পরীক্ষা: ভুল প্রশ্ন দেয়ায় ৩ শিক্ষককে বহিষ্কার

নাটোরের গুরুদাসপুরের বিল চলন শহীদ শামসুজ্জোহা সরকারী অর্নাস কলেজে চলতি এইচএসসি পরীক্ষায় কেন্দ্রে দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে ৩ শিক্ষককে পরীক্ষার সকল কার্যক্রম থেকে এ বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। সোমবার বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষায় দায়িত্ব অবহেলার কারণে আজ মঙ্গলবার তাদের বিরুদ্ধে এই বহিষ্কারাদেশ দেন পরীক্ষা কমিটি। বহিষ্কৃত তিন শিক্ষক হলেন, শামসুজ্জোহা কলেজের প্রভাষক লুৎফুল হক ও রিতা রানী এবং একই কলেজের ডেমোনষ্ট্রেটর (প্রদর্শক) আখের আলী।

কেন্দ্র সচিব অধ্যক্ষ রেজাউল করিম ও পরীক্ষার্থী কাউছার আলী,দুলাল হোসেন সহ অন্যান্য পরীক্ষার্থীরা জানান, সোমবারের এইচএসসি বাংলা ১ম পত্রের পরীক্ষায় শহীদ শামসুজ্জোহা কলেজের ৩০১ নম্বর কক্ষে ৫১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। এদের মধ্যে ২০১৬ সালের পুরাতন সিলেবাসের ১৫ জন এবং চলতি বছরের নিয়মিত ৩৬ জন পরীক্ষার্থী ছিল।

দায়িত্বরত শিক্ষকরা প্রশ্নপত্র দেয়ার সময় পুরাতন সিলেবাসের ১৫টি প্রশ্নপত্র ভুল করে নতুন সিলেবাসের পরীক্ষার্থীদের দিয়ে দেন। পরীক্ষার্থীরা বিষয়টি বুঝতে না পেরে ওই প্রশ্নপত্রেই পরীক্ষা সম্পন্ন করে। বিষয়টি বুঝতে পেরে মঙ্গলবার সকালে ওই ছাত্ররা পরীক্ষা কেন্দ্র উপস্থিত হয়ে কেন্দ্র সচিব অধ্যক্ষ রেজাউল করিমকে বিষয়টি জানায়। কেন্দ্র সচিব বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে প্রাথমিক ভাবে ঘটনার সত্যতা পান। এ ঘটনায় পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্বে অবহেলার কারণে ওই তিন শিক্ষককে এ বছরের পরীক্ষার কার্যক্রম থেকে বহিষ্কার করেন।

এ সম্পর্কে গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনির হোসেন জানান, অভিযুক্ত ওই তিন শিক্ষককে সাতদিনের মধ্যে এ ব্যাপারে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। পরবর্ত্তীতে ওই শিক্ষকদের পক্ষ থেকে উত্তর পেলে সে অনুযায়ী ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*