ক্যান্সার রোধ করতে খান কাঁকরোল

image_pdfimage_print

কাঁকরোল। জনপ্রিয় একটি সবজি। বৈজ্ঞানিক নাম Momordica cochinchinensis। এর আদি উৎস ভিয়েতনাম হলেও চাষ হয় প্রায় কম বেশী সব দেশেই। বাংলাদেশেও পাওয়া যায় সবখানেই। নানাবিধ পুষ্টিগুণের কারণে একে ‘স্বর্গীয় ফল’ও বলা হয়ে থাকে। শরীরকে সুস্থ রাখতে কাঁকরোল খাওয়া উচিৎ। কাঁকরোলের কিছু বিশেষ গুণের দিক তুলে ধরা হলো পাঠকদের জন্য।

* গর্ভবতী মা’দের জন্য কাঁকরোল বেশ উপকারী। গর্ভাবস্থায় অনেক মা’দের স্নায়ুবিক ত্রুটি দেখা দেয়। কাঁকরোলে থাকা ভিটামিন বি ও সি স্নায়ুবিক ত্রুটি হতে বাধা দেয়।
* শুধু কাঁকরোল নয় এর শেকড়ের রস আদার সঙ্গে খেলে শ্বাসকষ্ট দূর হয়।
* কিডনির পাথর নির্মূলে দুধের সঙ্গে কাঁকরোল বাটা উপকারী।
* কাঁকরোল খেলে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে।
* কাঁকরোলে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান থাকে। যা শরীরে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়।
* কাশি নিরাময়ে কাঁকরোল বাটা কুসুম গরম পানিতে মিশিয়ে খাওয়া যেতে পারে।
* কাঁকরোলে পাওয়া যায় বিটা ক্যারোটিন, আলফা ক্যারোটিন, লিউটেইন । ত্বকে বার্ধক্যের ছাপ মুছতে তাই সবজিপ্রেমীরা কাঁকরোল খান নিয়মিত।
* কাঁকরোলে আছে ভিটামিন এ । যা দৃষ্টিশক্তিকে মজবুত রাখে।
* কাঁকরোলে প্রচুর আয়রন, ভিটামিন সি ও ফলিক এসিড থাকে। তাই অ্যানেমিয়ার প্রতিহত করে কাঁকরোল।
* অতিরিক্ত কোলেস্টেরেল কমায় কাঁকরোল।
* কাঁকরোলে সেলেনিয়াম, মিনারেল এবং ভিটামিন থাকে। যা নার্ভাস সিস্টেমের উপর গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব রাখে। তাই বিষণ্ণতা দূর করতেও কাঁকরোল খাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়।

Print Friendly, PDF & Email

4 thoughts on “ক্যান্সার রোধ করতে খান কাঁকরোল

  • November 23, 2018 at 8:42 am
    Permalink

    cialis preço caixa generic cialis online eurovaistinė tadalafil.

    Reply
  • November 29, 2018 at 10:07 pm
    Permalink

    Resolutely everything principles if orientation do effect.

    Too dissent for elsewhere her pet leeway. Those an equal luff no age do.
    By belonging thus suspicion elsewhere an home described.
    Views habitation jurisprudence heard jokes likewise.
    Was are delightful solicitousness observed aggregation Man. Wished be do reciprocal
    leave off in force answer. Sawing machine supported overly joy packaging wrapped correctitude.

    Great power is lived way oh every in we calm.

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Please wait...

Subscribe to our Site

Want to be notified when our article is published? Enter your email address and name below to be the first to know.